October 24, 2021, 12:43 am

তালেবান শপথ নেবে ৯/১১-এর দিন!

তালেবান শপথ নেবে ৯/১১-এর দিন!

ডিএন২৪ ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের টুইন টাওয়ারে হামলার ২০ বছর পূর্তির দিন ১১ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের তালেবান গঠিত অন্তর্বর্তীকালীন সরকার শপথ নিতে পারে বলে খবর প্রকাশ করেছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম।

ভারতভিত্তিক সংবাদ সংস্থা ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিসে বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, শপথ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে এরই মধ্যে চীন, তুরস্ক, ইরান, কাতার, ভারত, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে নবগঠিত তালেবান সরকার।

১৫ আগস্ট কাবুল পতনের পর মঙ্গলবার রাতে ৩৩ জনকে নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ইসলামিক আমিরাত অফ আফগানিস্তান (আইইএ) গঠন করে তালেবান।

তালেবান নেতা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দকে ইসলামিক আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী করা হয়। তালেবানের সহপ্রতিষ্ঠাতা আব্দুল গনি বারাদারকে করা হয় সরকারের উপপ্রধান।

তালেবানের উপনেতা সিরাজুদ্দিন হাক্কানিকে ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সংগঠনের রাজনৈতিক প্রধান শের মোহাম্মদ আব্বাস স্ট্যানেকজাইকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী করা হয়।

এ ছাড়া, তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমরের ছেলে মোল্লা ইয়াকুবকে ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও তালেবান নেতা হেদায়াতুল্লাহ বদরিকে করা হয় অর্থমন্ত্রী।

আফগানিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী মোল্লা আখুন্দের ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনের (এফবিআই) মোস্ট ওয়ান্টেড তালিকায় রয়েছেন আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সিরাজুদ্দিন হাক্কানি।

হাক্কানির মাথার দাম এক কোটি ডলার ঘোষণা করেছিল এফবিআই। অন্যদিকে আফগানিস্তানের শরণার্থীবিষয়ক মন্ত্রী খলিল হাক্কানির মাথার দাম ৫০ লাখ ডলার ঘোষণা করা হয়েছিল।

দুই দশক আগে ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর সকালে যুক্তরাষ্ট্রে চারটি সমন্বিত সন্ত্রাসী হামলা হয়।

সন্ত্রাসীরা চারটি বিমান ছিনতাই করে নিউ ইয়র্কের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার ও ভার্জিনিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর সদর দপ্তর পেন্টাগনে হামলা চালায়। ওই হামলায় আল-কায়েদার ১৯ সদস্য ছাড়াও প্রায় ৩ হাজার বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু হয়।

আল-কায়েদাকে আশ্রয় দেয়ার অভিযোগে ওই বছরই আফগানিস্তানে হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্রসহ ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো। উৎখাত হয় তৎকালীন তালেবান সরকার।

গত এপ্রিলে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ঘোষণা দেন, আফগানিস্তানে দুই দশকের যুদ্ধের ইতি টেনে সেপ্টেম্বরের মধ্যে সব সেনা ফেরত নেবেন। মে থেকে উজ্জীবিত তালেবান আফগানিস্তানের একের পর এক প্রদেশ দখল নিতে শুরু করে।

সবশেষ গত ১৫ আগস্ট রাজধানী কাবুল ও প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ দখলে নিয়ে সবকিছুতে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করে কট্টর ইসলামপন্থি দলটি। তবে সরকার গঠনে সময় নিচ্ছিল তালেবান। সেই অপেক্ষার অবসান হয় মঙ্গলবার।

কাবুল ও প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ দখলের পরই সম্ভাব্য সরকার নিয়ে তালেবান বলেছিল, তারা ২০ বছর আগের অবস্থানে নেই। এবার অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার গঠন করা হবে, যেখানে থাকবে সবার অংশগ্রহণ। রাখা হবে নারী প্রতিনিধি।

সময়ের সঙ্গে সুর পাল্টায় তালেবান। জানায়, এককভাবেই সরকার গঠন করবে তারা। রাখা হবে না কোনো নারী নেতৃত্বও। অন্তর্বর্তী সরকারেও তাই দেখা গেল।

তালেবান সরকারের প্রধান চ্যালেঞ্জ হবে দীর্ঘ সময়ের যুদ্ধে দেশের ভগ্নদশা অর্থনীতি চাঙা করা, দেশে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সম্পর্ক স্থাপন করা।

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © 2020 districtnews24.Com
Design & Developed BY districtnews24.Com