January 26, 2021, 2:14 am

শিরোনাম :
ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টাস ইউনিটের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ফ্যামিলি মেডিসিন এবং জেনারেল প্র‍্যাকটিসকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ না দিলে স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নয়ন সম্ভব নয় ঠাকুরগাঁও গড়েয়ার স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহায়তায় রিক্সা ও ভ্যান শ্রমিকদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ রাণীনগরে সিমেন্ট বোঝাই ট্রাকের ধাক্কায় সাইকেল আরোহী নিহত বোনের কান্না থামাতে দা দিয়ে কোপ মারে বড বোন, ছোট বোনের মৃত্যু! ঠাকুরগাঁওয়ে কে এম বি ব্রিক ভাটায় মোবাইল কোর্ট,১ লাখ টাকা জরিমানা ঠাকুরগাঁওয়ে বাস্কেটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন ও শীতবস্ত্র বিতরণ আলীকদমে ভূমিহীন ও গৃহহীন ৫০ পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান নওগাঁয় পিসরেটের অস্থায়ী কর্মচারীদের চাকুরী স্থায়ী করণের দাবিতে কর্ম বিরতী ও স্মারকলিপি প্রদান ঠাকুরগাঁওয়ে ঘর পেল গৃহহীনরা
নওগাঁ শহরে মাইকিং এর মাধ্যমে করোনা মোকাবিলায় সন্ধা ৭টায় দোকানপাট বন্ধ

নওগাঁ শহরে মাইকিং এর মাধ্যমে করোনা মোকাবিলায় সন্ধা ৭টায় দোকানপাট বন্ধ

আতাউর শাহ্, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ
করোনাভাইরাসের সংক্রামণের ‘দ্বিতীয় ঢেউ’ মোকাবিলায় শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) থেকে নওগাঁ শহরের ওষুধের দোকান ব্যতীত সব দোকান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মার্কেট, বিপণিবিতান সন্ধ্যা সাতটার পর বন্ধ থাকবে। করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় পরিস্থিতি মোকাবিলায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে নওগাঁর শিল্প ও বণিক সমিতির।

নওগাঁ শিল্প ও বণিক সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সভা শেষে বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) বিকেলে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। পরে শহরের বিভিন্ন স্থানে শুক্রবার থেকে সন্ধ্যা সাতটার পর থেকে দোকানপাট বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়ে মাইকিং করা হয়।

শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল বলেন, নওগাঁয় করোনার ‘দ্বিতীয় ঢেউ’ শুরু হয়েছে। দোকানদার, খরিদ্দার কেউই স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় আপাতত সন্ধ্যা সাতটার পর থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মার্কেট, বিপণি বিতান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পরামর্শে এবং স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সম্মতিতে নওগাঁ শিল্প ও বণিক সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এদিকে দ্বিতীয় দফায় জেলায় করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় কয়েক দিন ধরে জেলা প্রশাসন নওগাঁ শহরের বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছে। গত মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তিন দিনে মাস্ক ব্যবহার না করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৩৪ জনকে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

নওগাঁর ডেপুটি সিভিল সার্জন মনজুর-ই মোর্শেদ বলেন, নভেম্বরের শুরু থেকেই আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ব্যাপক হারে বেড়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ব্যাপক বৃদ্ধির কারণে মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। মাস্ক পরছেন না। সামাজিক দূরত্ব ভেঙে পড়ছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় এখনই সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন।#

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © 2020 districtnews24.Com
Design & Developed BY districtnews24.Com