October 29, 2020, 7:41 am

শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে পদ্মা নদীতে গোসল করতে গিয়ে এক শিশুর মৃত্যু গোদাগাড়ীতে ৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন ১০০ গ্রাম হেরোইনসহ একজন মাদক ব্যবসায়ী আটক আইজিপি’র সাথে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সাক্ষাত নওগাঁর নিয়ামতপুর রাস্তার নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করলেন খাদ্যমন্ত্রী গোদাগাড়ীতে RAB-5, অভিযানে হেরোইনসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী আটক লামায় জাতীয় পার্টির নতুন অফিস উদ্বোধন ও ১ম বর্ষপূর্তি পালন! চকরিয়া প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কার্যকরী পরিষদের অভিষেক অনুষ্ঠানে বক্তারা: বস্তুনিষ্ট লেখনীর মাধ্যমে চকরিয়া প্রেসক্লাবের সাংবাদিকগন সারা দেশে রোল মডেল হতে পারেন জন্মদিনে শুভাকাঙ্খীদের ভালোবাসায় সিক্ত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সাদ্দাম দেবিদ্বার উপজেলা ট্যালেন্ট হান্ট ও উচ্চশিক্ষা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত পেকুয়ায় ডাম্পার-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-২, আহত-৪
কক্সবাজারের শীর্ষ সাত পুলিশ কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি

কক্সবাজারের শীর্ষ সাত পুলিশ কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি

কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনের পর এবার জেলার সাতজন শীর্ষ পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে তাদের বদলি করা হয়েছে।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইনকে ডিএমপির অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আদিবুল ইসলামকে মুন্সীগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, কক্সবাজার সদরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রেজওয়ান আহমেদকে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ-জিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, মহেশখালী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার রতন কুমার দাশগুপ্তকে চট্টগ্রাম নবম এপিবিএনের সহকারী পুলিশ সুপার, ট্রাফিক পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার বাবুল চন্দ্র বণিককে চট্টগ্রাম আরআরএফের সহকারী পুলিশ সুপার, চকরিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার কাজি মো. মতিউল ইসলামকে নোয়াখালীর সহকারী পুলিশ সুপার, ডিএসবির সহকারী পুলিশ সুপার মো. শহিদুল ইসলামকে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) এর সহকারী পুলিশ কমিশনার হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেনকে বদলি করে রাজশাহীর পুলিশ সুপার করা হয়। আর ঝিনাইদহের এসপি মো. হাসানুজ্জামানকে কক্সবাজার জেলা পুলিশের দায়িত্ব দেয়া হয়।

গত ৩১ জুলাই টেকনাফের মেরিন ড্রাইভে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ পুলিশের গুলিতে নিহতের ঘটনায় সমালোচিত হন পুলিশ সুপার। মেজর সিনহা নিহতের পর এসপির সঙ্গে জেলা পুলিশের একাধিক কর্মকর্তার কথোপকথন ফাঁস হয়। যা গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রকাশিত হয়। গত ১০ সেপ্টেম্বর নিহত সিনহার বোন এসপি মাসুদকে আসামি করতে আদালতে একটি আবেদন করেন। তবে আদালত সেই আবেদন খারিজ করে দেয়।

সিনহা হত্যায় টেকনাফের বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ পুলিশের সাত সদস্য কারাগারে রয়েছেন। দেশ-বিদেশে আলোড়ন সৃষ্টি করা এই ঘটনায় জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি অনেকাংশে ক্ষুণ্ন হয়

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © 2020 districtnews24.Com
Design & Developed BY districtnews24.Com