July 9, 2020, 1:48 am

শিরোনাম :
লামা সাংবাদিক ফোরামে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান করলেন পৌরমেয়র জহিরুল ইসলাম পেকুয়ার টইটংয়ের সেই নাছিরের পক্ষে রাস্তায় নামল গ্রামবাসী করোনা পরিস্থিতিতে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের আলোর পথ দেখাচ্ছে চকরিয়া যুব পরিষদ ও পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক পেকুয়ায় হামলায় স্কুল ছাত্রীসহ ৩ জন জখম কালিয়াকৈরে বাসা-বাড়িতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ, কতৃপক্ষের উদাসীনতা বাংলাদেশে করোনায় আরো ৫৫ জনের মৃত্যু; আক্রান্ত ৩,০২৭ নিরাপদ শপিং এর নিশ্চয়তায় ফ্যাশন ফিট খোলা থাকছে সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারীদের এমপিওভুক্ত করা হবে -মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী কালিয়াকৈরে চিকিৎসকদের অবহেলায় প্রসুতি মায়ের মৃত্যু, স্বজনদের অভিযোগ পেকুয়ায় গ্রাম পুলিশকে ছুরিকাঘাত
বাংলাদেশ বৈশ্বিক চাহিদা মেটাতে সক্ষম : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশ বৈশ্বিক চাহিদা মেটাতে সক্ষম : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ডিএন২৪ ডেস্ক

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে পিপিই রপ্তানির মাধ্যমে করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে বিশ্বব্যাপী চাহিদা মেটাতে বাংলাদেশ তার সক্ষমতা প্রদর্শন করেছে। তবে দুমাস আগে তিনি এ ধরণের সুযোগের কথা বললেও অনেকে এই সম্ভাবনার বিষয়ে বিদ্রূপ করেছিলেন বলেও জানান মন্ত্রী।

তিনি ইউএনবিকে বলেন, ‘আমাদের ব্যবসায়ীরা খুবই দক্ষ। তারা খুব দ্রুত এটি করেছে (ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জামের প্রথম চালান রপ্তানি করে)’।

গত ২৩ মার্চ ড. মোমেন গণমাধ্যমকে জানান, বাংলাদেশ থেকে আমদানি করতে চায় এমন ২২টি পণ্যের একটি তালিকা পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

তবে অনেকেই এ বিষয়ে বিস্ময় প্রকাশ করে এবং এটি অসম্ভব উল্লেখ করে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সমালোচনা করেছিলেন।

কেউ কেউ বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের মতো উন্নত দেশ কখনোই বাংলাদেশকে চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহ করতে বলতে পারে না, যদিও তারা জানেন যে বাংলাদেশ বছরে প্রায় ৬ বিলিয়্ন ডলারের পোশাক সরবরাহ করে যুক্তরাষ্ট্রে।

প্রাথমিকভাবে ২২টি পণ্যের তালিকা পাঠালেও পরে এতে আরও তিনটি সরঞ্জাম যুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এ বিষয়ে বাংলাদেশী ব্যবসায়ী এবং কূটনীতিকদের মধ্যে আলোচনার পর বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো তালিকা থেকে ১৪টি সরঞ্জাম রপ্তানি করতে সক্ষম বাংলাদেশ।

এসব চিকিৎসা সরঞ্জাম বাংলাদেশ কেবল যুক্তরাষ্ট্রেই নয়, অন্যান্য দেশেও সরবরাহ করছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বলেন, ‘এগুলো আমরা কয়েকটি দেশে রপ্তানি করার পাশাপাশি কিছু দেশে অনুদান হিসেবেও পাঠাচ্ছি।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশে যখন করোনাভাইরাস চিহ্নিত হয় তখন বাংলাদেশি গার্মেন্টস মালিকরা এক সপ্তাহের মধ্যে ৫-৬ লাখ পিপিই তৈরি করেছিলেন বাংলাদেশে ব্যবহারের জন্য।

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © 2019 districtnews24.Com
Design & Developed BY districtnews24.Com