March 31, 2020, 4:05 pm

শিরোনাম :
মুলাদীতে তুচ্ছ ঘটনায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৩ করোনা ভাইরাস সংকটে মানবিক উদ্যোগ নিয়েছে কক্সবাজার জেলা পুলিশ : এসপি মাসুদ কাজিপুরে নিম্ন আয়ের মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ চকরিয়ায় গৃহবন্দী কর্মহীন মানুষের ঘরে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন ইউএনও শিবলী নোমান সাধারণ ছুটি ১১ এপ্রিল পর্যন্ত সিরাজগঞ্জে গৃহবধুকে গণধর্ষনে ব্যর্থ হয়ে মাথা ফাটালেন ৫ জনের করোনার সঙ্গে যদি মশা যোগ হয় বা ডেঙ্গু আসে, সেটা আমাদের জন্য আরও মারাত্মক হবে- প্রধানমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে চিকিৎসক ও নার্সদের মাঝে পিপিই ও হ্যান্ড গ্লোব বিতরণ যারা ত্রান সামগ্রী নিতে এসেছে এরা কেউ ভিক্ষুক নয়.. মোজাম্মেল হক কালিয়াকৈরে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর অসহায়দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
পঞ্চগড়ে ৬৫টি ভাষায় অনুদিত পবিত্র কোরআনের বিরল প্রদর্শনী

পঞ্চগড়ে ৬৫টি ভাষায় অনুদিত পবিত্র কোরআনের বিরল প্রদর্শনী

পবিত্র কোরআনের শিক্ষা পৃথিবীর প্রান্তে প্রান্তে পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যেই আহমদিয়া মুসলিম জামা’ত বিভিন্ন ভাষায় পবিত্র কোরআনের অনুবাদ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে বিশ্বের ৭৬টি প্রধান প্রধান ভাষায় আহমদিয়া জামাত পবিত্র কোরআনের অনুবাদ প্রকাশ করেছে। 

আহমদিয়া মুসলিম জামাত বাংলাদেশের ৯৬তম বার্ষিক জলসা উপলক্ষ্যে পঞ্চগড়স্থ জামেয়া আহমদিয়া বাংলাদেশের কমপ্লেক্স ভবনে ৬৫টি ভাষায় অনুদিত পবিত্র কোরআনের বিরল এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন নিখিলবিশ্ব আহমদিয়া মুসলিম জামাতের ৫ম খলীফার সম্মানিত প্রতিনিধি মাওলানা আব্দুল মাজেদ তাহের। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন আহমদিয়া মুসলিম জামাত বাংলাদেশের ন্যাশনাল আমীর আলহাজ্জ মাওলানা আব্দুল আউয়াল খান চৌধুরী, জামেয়া আহমদিয়া বাংলাদেশের প্রিন্সিপাল আলহাজ্জ মোবাশ্বের উর রহমান এবং মাওলানা শাহ মুহাম্মদ নূরুল আমীন।    

পঞ্চগড়ে এই প্রথম বারের মতো জলসা উপলক্ষ্যে পবিত্র কোরআনের ৬৫টি ভাষায় সম্পূর্ণ অনুবাদ প্রদর্শনীর আয়োজন করে আহমদিয়া মুসলিম জামাত, বাংলাদেশ। এটি নি:সন্দেহে পবিত্র কোরআনের বিরল এক প্রদর্শনী। এছাড়া আহমদিয়া মুসলিম জামাতের পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১০০টি ভাষায় সম্পূর্ণ কোরআন অনুবাদের কাজ সমাপ্ত হয়েছে যা প্রিন্টিং পর্যায়ে আছে। 

প্রদর্শনীর আয়োজকগণ বলেন, ‘আমরা চাই, প্রতিটি ভাষায় কোরআনের অনুবাদ প্রকাশ করে ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা সবার কাছে পৌঁছে দিতে। আমরা এবার ৬৫টি ভাষায় অনুদিত কোরআন প্রদর্শনীর আয়োজন করেছি।’

কোরআন প্রদর্শনীর পরিচালক মাওলানা শাহ মোহাম্মদ নুরুল আমীন বলেন- এ প্রদর্শনী দেখতে আসা বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী ও দর্শনার্থীদের মাঝে ব্যাপক আগ্রহ ও উচ্ছ্বাস পরিলক্ষিত হয়েছে। সেই সাথে জলসা উপলক্ষ্যে আগত প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাগণ এ উদ্যোগকে ভূয়সী প্রশংসা করেন। আহমদিয়া  জামাত এ প্রদর্শনীর পদক্ষেপকে কোরআনের গুরুত্ব উপলব্ধি ও এর প্রকৃত জ্ঞান বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেয়ার এক মহাসুযোগ হিসেবে মনে করছে। প্রদর্শনীতে বাংলা, ইংরেজী, উর্দূ, মাওরি, জুলা, মেনডি, ওরিয়া, ইয়াউ, কিকাম্বা, কাটালান, টভালুয়ান ভাষা সহ মোট ৬৫টি ভাষায় অনুবাদকৃত কোরআন প্রদর্শন করা হয়েছে। 

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © 2019 districtnews24.Com
Design & Developed BY districtnews24.Com