March 29, 2020, 7:20 pm

বাণী অর্চনার আরাধনা বৃহস্পতিবার

বাণী অর্চনার আরাধনা বৃহস্পতিবার

ডিএন২৪ ডেস্ক: হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব সরস্বতী পূজা বৃহস্পতিবার। বাণী অর্চনা ও নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিদ্যা, বাণী ও সুরের দেবী সরস্বতীর আরাধনা করা হবে।

সরস্বতী পূজা উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায় বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার বাণী অর্চনাসহ নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে।

সনাতন ধর্মালম্বীদের মতে, দেবী সরস্বতী সত্য, ন্যায় ও জ্ঞানালোকের প্রতীক। বিদ্যা, বাণী ও সুরের অধিষ্ঠাত্রী। ধর্মীয় বিধান অনুসারে সাদা রাজহাঁসে চড়ে বিদ্যা ও সুরের দেবী সরস্বতী পৃথিবীতে আসেন।

হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম এই ধর্মীয় উৎসবে পঞ্চমী তিথিতে বিদ্যা ও জ্ঞানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী সরস্বতীর চরণে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করবেন অগণিত ভক্ত।

রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশের মন্দির ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে পূজা ছাড়াও অন্য অনুষ্ঠানমালায় আছে পুষ্পাঞ্জলি প্রদান, হাতেখড়ি, প্রসাদ বিতরণ, ধর্মীয় আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সন্ধ্যা আরতি ও আলোকসজ্জা।

সরস্বতী পূজা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হিন্দু সম্প্রদায়ের সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

প্রতি বছরের ন্যায় এবারো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী জগন্নাথ হলে সাড়ম্বরে বিদ্যা ও আরাধনার দেবী সরস্বতীর পূজার আয়োজন করা হয়েছে। সকাল ৮টায় শুরু হবে পূজার্চনা এবং ৯টা থেকে শুরু হবে অর্চনা, অঞ্জলি প্রদান, হাতেখড়ি ও প্রসাদ বিতরণ। সন্ধ্যা ৬টায় হবে আরতি অনুষ্ঠান।

এ ছাড়াও হলজুড়ে বিভিন্ন বিভাগ ও ইন্সটিটিউটের বিদ্যার্থীরা পূজার আয়োজন করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে রাত ১২টা ১ মিনিটে প্রতিমা স্থাপন, সকাল ৯টায় পুষ্পাঞ্জলি ও পরে প্রসাদ বিতরণ।

এ বছর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ ও ইন্সটিটিউট জগন্নাথ হল চত্বরজুড়ে বিভিন্ন আইডিয়া ও থিমভিত্তিক ৭০টির বেশি মণ্ডপ নির্মাণ করা হয়েছে।

জগন্নাথ হল উপাসনালয়ে হল প্রশাসনের উদ্যোগে কেন্দ্রীয়ভাবে আয়োজিত একটি পূজা ছাড়াও বিশেষ আকর্ষণ থাকবে হল পুকুরে চারুকলা অনুষদের তৈরি ৩২ ফুট দীর্ঘ বিশাল আকৃতির একটি প্রতিমা।

এ দিকে সরস্বতী পূজা তিথি বুধবার ৯টা ১৫ মিনিটে শুরু হওয়ায় দেশের অনেক স্থানে পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সরস্বতী পূজা উপলক্ষে সারা দেশের পূজার্থী-বিদ্যার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু বেৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ।

বুধবার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত এক বিবৃতিতে বলেছেন, নির্বিঘ্নে অনুষ্ঠান আয়োজনে সর্বাত্মক সহায়তা দেয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, শিক্ষক, ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী, ডাকসু ও সাধারণ ছাত্রসমাজকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © 2019 districtnews24.Com
Design & Developed BY districtnews24.Com