December 12, 2019, 9:30 pm

প্রতিবছর প্রায় দুই কোটি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করা হয়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রতিবছর প্রায় দুই কোটি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করা হয়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বর্তমান সরকার শিক্ষা উন্নয়নে ব্যাপক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। বিশেষ করে নারী শিক্ষার উন্নয়নে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। যা অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। একটি শিক্ষিত নারী একটি পরিবার তথা গোটা সমাজ ব্যবসার পরিবর্তন করতে পারে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিবছর প্রায় দুই কোটি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করেন। এতে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার প্রতি আগ্রহ বাড়ে এবং ভালভাবে লেখাপড়া করার ইচ্ছা জাগে। বিশেষ করে নারী শিক্ষার অগ্রগতির ক্ষেত্রে শিক্ষা বৃত্তির গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে।

রোববার (২৪ নভেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে জেলা পরিষদের উদ্যোগে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি আরও বলেন, স্বপ্ন বড় হলে অর্জনও বড় হবে। এজন্য কঠোর পরিশ্রম ও অধ্যবসায় মাধ্যমে নিজেদের গড়ে তুলতে হবে। আজকের শিক্ষার্থীরাই আগামী দিনের কর্ণধার। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে নিজেদের সোনার মানুষ হতে হবে। নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে তুলতে হলে সুশিক্ষা অর্জন করতে হবে।

তিনি সিলেটের নারী শিক্ষার উন্নয়নের কথা উল্লেখ্য করে বলেন, নারীদের এ অর্জন আমাদের ধরে রাখতে হবে। জেলা পরিষদের মাধ্যমে বৃত্তি পাওয়াদের প্রায় ৯৭ শতাংশ মেয়ে হওয়ায় তিনি আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান।

জেলা পরিষদের উদ্যোগে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে ২১৮ জন শিক্ষার্থীকে ১৫ লাখ ৭ হাজার ৫০০ টাকা বৃত্তি প্রধান করা হয়।

জেলা পরিষদ সিলেট এর চেয়ারম্যান  মোঃ লুৎফুর রহমান এডভোকেট এর সভাপতিত্বে ও জেলা পরিষদ সদস্য মতিউর রহমান এবং সাটলিপিকার একেএম কামারুজ্জামান মাছুম এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য দেন শাবিপ্রবি’র ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ, সিলেট এর জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম। সম্মানিত অতিথি’র বক্তব্য দেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, সীমান্তিক এর চীফ পেট্রন, আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আহমদ আল কবির।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন কালেক্টরেট জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফিজ মাওলানা শাহ আলম, গীতা পাঠ করেন বিবেকানন্দ সমাজপতি। স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা পরিষদ সিলেট এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিংহ।

সদস্যবৃন্দের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন আমাতুজ জাহুরা রওশন জেবীন রুবা, ইমাম উদ্দিন চৌধুরী, সাজনা সুলতানা হক চৌধুরী, নুরুল ইসলাম, মোঃ শামীম আহমদ। প্রধান অতিথিকে উপহার প্রদান করেন জেলা পরিষদ সদস্য মতিউর রহমান, নুরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথিকে উপহার প্রদান করেন জেলা পরিষদ সদস্য সায়িদ আহমদ সুহেদ

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © 2019 districtnews24.Com
Design & Developed BY districtnews24.Com