October 14, 2019, 8:40 am

শিরোনাম :
মুক্তাগাছায় স্কুলছাত্রী উমামাকে খুনের অভিযোগ, বাবা ও সৎ মা গ্রেফতার কক্সবাজারের কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে র‌্যাগিংয়ের নামে নির্যাতন করা চলবে না: এসপি মাসুদ আলীকদমে সড়ক দুর্ঘটনায় পেকুয়ার দুই যুবক নিহত; আহত ১৫ আবরার হত্যায় বিবৃতি: জাতিসংঘ প্রতিনিধিকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব গুরুদাসপুরে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু বুয়েটের পর মাদকাসক্তরা তাড়িয়ে দিলো ইবি ছাত্রলীগ সভাপতিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অন্যায় আচরণ সহ্য করা হবে না: প্রধানমন্ত্রী ৫ দফা দাবি মেনে বুয়েটের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, আন্দোলন আপাতত স্থগিত বিএনপির অপপ্রচার দেশের মানুষ এখন আর খায় না : তথ্যমন্ত্রী টঙ্গীতে হোটেলে পুলিশের অভিযানে ১৮ নারী-পুরুষ আপত্তিকর অবস্থায় আটক
দুর্নীতির সঙ্গে জড়িতদের কেউ রেহাই পাবে না: রাষ্ট্রপতি

দুর্নীতির সঙ্গে জড়িতদের কেউ রেহাই পাবে না: রাষ্ট্রপতি

ডিএন২৪ ডেস্কঃ রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন,দুর্নীতির কারণে একটি দেশ সবদিক থেকে পিছিয়ে পড়ে। আমাদের দেশ ও সমাজ থেকে যে কোনো মূল্যে দুর্নীতি দূর করতে হবে। বর্তমান সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে যে পদক্ষেপ নিয়েছে, আমি মনে করি তা নিঃসন্দেহে একটি ভালো উদ্যোগ। এটা দেশ ও সমাজের জন্য খুবই মঙ্গলজনক।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আওয়ামী লীগ কিংবা যে কোনো দলের হোক দুর্নীতি করলে সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। তাই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িতদের কেউ রেহাই পাবে না।

বুধবার বিকালে কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সরকারি কলেজ মাঠে উপজেলা নাগরিক কমিটি আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, আমি বক্তৃতা দিতে আসিনি। এখন আমি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত নই। বক্তৃতা দিলে রাজনৈতিক দলগুলোর পক্ষে-বিপক্ষে বলতে হবে। আমার সে অবস্থা নেই।

কলেজ মাঠে উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে আসা উপস্থিত জনতার উদ্দেশে রাষ্ট্রপতি বলেন, আমি এসেছি আপনাদের সঙ্গে দেখা করতে। কারণ ১৯৬৯ সালে এই তাড়াইল উপজেলার পুরুড়া উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আমি আমার জীবনে প্রথম কোনো জনসভায় বক্তৃতা দেয়ার সুযোগ পাই এবং ওই জনসভাতেই আমাকে ভাটির সার্দুল উপাধিতে ভূষিত করেছিলেন এই উপজেলার জনগণ। এখন তাদের অনেকেই আর বেঁচে নেই।

এ সময় রাষ্ট্রপতি তার জীবনের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তাড়াইল উপজেলাবাসীর উদ্দেশে বলেন, ১৯৭০ সালের নির্বাচনেও আপনারা আমাকে জীবনের প্রথম নির্বাচনে বিপুল ভোটে এমএনএ নির্বাচিত করেছিলেন। ওই নির্বাচনের সময়ও এই তাড়াইলের ছোট ছোট শিশু থেকে যুবক, বৃদ্ধ পর্যন্ত ‘গাছের আগায় পক্ষি, হামিদ ভাই লক্ষ্মী বলে স্লোগান দিয়ে চারদিক মুখরিত করে রাখতেন। যা আমি কোনোদিন ভুলতে পারব না। এ জন্য আমি আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 districtnews24.Com
Design & Developed BY districtnews24.Com